1. domhostregbd@gmail.com : devteam :
  2. wearesouthasian@gmail.com : editor :
  3. mthakurbd@gmail.com : executiveeditor :
  4. mollah.ridom.press@gmail.com : Masud Hasan : Masud Hasan
Title :
রায়পুরা পৌরসভায় মুখে মাস্ক না থাকার কারণে দুটি ঔষধ দোকানে ২৫০০ টাকা জরিমানা চাঁপাইনবাবগঞ্জে ১ কেজি হেরোইনসহ র‌্যাবের হাতে আটক যুবক পদ্মা নদীর পাড় থেকে কোস্ট গার্ডের অভিযানে ২ হাজার কেজি জাটকা জব্দ নৌ পুলিশের অর্জন : মুক্তারপুর নৌ পুলিশ ফাঁড়ি কর্তৃক ২,৫০,০০০০০ মিটার অবৈধ কারেন্ট জাল উদ্ধার ঢাকা উত্তর সিটি কর্পোরেশন এলাকায় মোবাইল কোর্টে ৪৯টি মামলায় প্রায় ৭৮ হাজার টাকা জরিমানা আদায় লামায় লক ডাউন কার্যকরে আন্তরিকতার সাথে কাজ করছে পুলিশ করোনা টিকার ২য় ডোজ নিলেন মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক মন্ত্রী অর্থ মন্ত্রীর মেয়ের স্বামীর মরদেহ তালা ভেঙ্গে উদ্ধার নুরের বিরুদ্ধে ধর্মীয় উসকানিমূলক বক্তব্যের অভিযোগে মামলা আইন তার নিজস্ব গতিতে চলবে,এটাই স্বাভাবিক

বেতাগীতে ইউপি চেয়ারম্যানের হাতে সংখ্যালঘু লাঞ্ছিত

  • Update Time : Wednesday, April 7, 2021
  • 14 Time View

নিজস্ব প্রতিনিধি:
বরগুনার বেতাগীতে ইউপি চেয়ারম্যানের বিরুদ্ধে এক সংখ্যালঘুকে লাঞ্চিত করার অভিযোগ উঠেছে। লাঞ্ছনার স্বীকার উপজেলার মোকামিয়া ইউনিয়নের ৬নং ওয়ার্ডের শঙ্কর মিস্ত্রী একই ইউনিয়নের বর্তমান চেয়ারম্যান মাহাবুব আলম সুজন মল্লিকের বিরুদ্ধে এই অভিযোগ করেন। এ ঘটনায় ভুক্তভুগী বেতাগী উপজেলা নির্বাহী অফিসারের নিকট লিখিত অভিযোগ করেন।
লিখিত অভিযোগ সূত্রে জানা যায়, ভুক্তভুগী শঙ্কর মিস্ত্রী গত সোমবার (০৫ এপ্রিল) তার মেয়ে পূর্ণিমা রাণীর জন্ম নিবন্ধনে চেয়ারম্যানের স্বাক্ষর সংগ্রহ করতে মোকামিয়া ইউনিয়নের চেয়ারম্যান মাহাবুব আলম সুজন মল্লিকের বাসায় যায়। পূর্ব থেকেই চলমান ইউপি নির্বাচনী জেড়ে এসময় ইউপি চেয়ারম্যান সুজন মল্লিক হঠাৎ ক্ষিপ্ত হয়ে শঙ্কর মিস্ত্রীকে গাল মন্দ করতে থাকেন। তখন শঙ্কর মিস্ত্রী তাকে গাল মন্দ করার কারণ জানতে চাইলে সুজন চেয়ারম্যান আরো গাল মন্দ মাত্রা বেড়ে যায়।
ভুক্তভুগী পরিবারের অভিযোগ, তারা দলীয়ভাবে আওয়ামীলীগের সমর্থক। এই নির্বাচনে তারা নৌকার প্রার্থীকে সমর্থন জানিয়েছেন। কিন্তু এতে বেতাগী উপজেলা বিএনপির যুগ্ম আহবায়ক ও বর্তমান ইউপি নির্বাচনে মোকামিয়া ইউনিয়নে স্বতন্ত্র চেয়ারম্যান প্রার্থী মাহাবুব আলম সুজন মল্লিক তার পরিবারের উপর ক্ষিপ্ত রয়েছে।
ভুক্তভুগী শঙ্কর মিস্ত্রী বলেন, আমার বড় ভাই মোকামিয়া ইউনিয়নের ৬ নং ওয়ার্ড আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক। আমি এবং আমার ভাই শুরু থেকেই নৌকার নির্বাচন করে আসছি। এরই জেড়ে আমি আমার মেয়ের জন্ম নিবন্ধনে স্বাক্ষর আনতে গেলে চেয়ারম্যান আমাকে গাল মন্দ করে।
শঙ্কর মিস্ত্রীর মেয়ে পূর্ণিমা রানী বলেন, আমার বাবা আমার জন্ম নিবন্ধনের জন্য স্বাক্ষর আনতে গেলে সুজন চেয়ারম্যান তাকে গাল মন্দ করে। আমি এর সুষ্ঠ বিচার চাই।
তবে এসব অভিযোগ অস্বীকার করে মোকামিয়া ইউনিয়নের চেয়ারম্যান মাহাবুব আলম সুজন মল্লিক বলেন, আমি শঙ্কর মিস্ত্রীকে কোন প্রকার গাল মন্দ কিংবা চড় থাপ্পর দেইনি। সে তার মেয়ের জন্ম নিবন্ধনে স্বাক্ষর নিতে এলে আমি তাকে স্বাক্ষর দিয়ে দেই। এর পর সে চলে যায়। ইউপি নির্বাচনী মাঠে আমাকে হেও প্রতিপন্ন করতে একটি মহল এসব মিথ্যা নাটক সাজাচ্ছে।
এ বিষয়ে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মো. সুহৃদ সালেহীন বলেন, চেয়ারম্যানের বিরুদ্ধে শঙ্কর মিস্ত্রী নামে একজন লিখিত অভিযোগ দিয়েছেন। এ বিষয়ে সুষ্ঠ তদন্ত সাপেক্ষে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেয়া হবে।
উপজেলা চেয়ারম্যান মাকসুদুর রহমান ফোরকন বলেন, সংখ্যালঘু লাঞ্চিতের ঘটনায় অভিযোগ পেয়েছি। এ বিষয়ে সুষ্ঠ তদন্ত করে উপজেলা নির্বাহী অফিসারকে প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ নিতে বলা হয়েছে।

Please Share This Post in Your Social Media

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

More News Of This Category
Portal Developed By ekormo.Com