1. domhostregbd@gmail.com : devteam :
  2. wearesouthasian@gmail.com : editor :
  3. mthakurbd@gmail.com : executiveeditor :
  4. mollah.ridom.press@gmail.com : Masud Hasan : Masud Hasan
Title :
রায়পুরা পৌরসভায় মুখে মাস্ক না থাকার কারণে দুটি ঔষধ দোকানে ২৫০০ টাকা জরিমানা চাঁপাইনবাবগঞ্জে ১ কেজি হেরোইনসহ র‌্যাবের হাতে আটক যুবক পদ্মা নদীর পাড় থেকে কোস্ট গার্ডের অভিযানে ২ হাজার কেজি জাটকা জব্দ নৌ পুলিশের অর্জন : মুক্তারপুর নৌ পুলিশ ফাঁড়ি কর্তৃক ২,৫০,০০০০০ মিটার অবৈধ কারেন্ট জাল উদ্ধার ঢাকা উত্তর সিটি কর্পোরেশন এলাকায় মোবাইল কোর্টে ৪৯টি মামলায় প্রায় ৭৮ হাজার টাকা জরিমানা আদায় লামায় লক ডাউন কার্যকরে আন্তরিকতার সাথে কাজ করছে পুলিশ করোনা টিকার ২য় ডোজ নিলেন মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক মন্ত্রী অর্থ মন্ত্রীর মেয়ের স্বামীর মরদেহ তালা ভেঙ্গে উদ্ধার নুরের বিরুদ্ধে ধর্মীয় উসকানিমূলক বক্তব্যের অভিযোগে মামলা আইন তার নিজস্ব গতিতে চলবে,এটাই স্বাভাবিক

হবিগঞ্জে টমটম ভাড়া নিয়ে নিয়মনীতির তোয়াক্কা নেই,গুনছে অতিরিক্ত ভাড়া এবং মানা হচ্ছে না প্রশাসনের নির্দেশনা

  • Update Time : Friday, April 2, 2021
  • 408 Time View


মোঃজুনাইদ চৌধুরী, হবিগঞ্জ জেলা প্রতিনিধিঃ

 হবিগঞ্জ জেলায় মহামারী করোনার কারণে স্বাস্থ্য বিধি মেনে গণপরিবহণ চলাচলের নির্দেশনা থাকলেও টমটম চালকরা তা মানছে না। একদিকে অতিরিক্ত ভাড়া নিচ্ছেন অপরদিকে অতিরিক্ত যাত্রীও বহন করা হচ্ছে। আর এতে করে জনমনে ক্ষোভ দেখা দিয়েছেন। জনসাধারণ বলছেন, ভাড়াও বেশি দিতে হবে আবার করোনা সংক্রমণ থেকেও রক্ষা পাব না, এ কেমন আচরণ। তবে প্রশাসন বলছে, আজ শুক্রবার থেকে কোনো টমটম চালক সরকারি নির্দেশনা না মানলে মোবাইল কোর্ট পরিচালনা করে জরিমানাসহ কারাদ- দেয়া হবে। জানা যায়, মহামারী করোনার কারণে গত বছরের ১ জুন থেকে স্বাস্থ্য বিধি মেনে গণপরিবহন চালু করার নির্দেশনা দেওয়া হয়। এরপর গত বছরের ১ সেপ্টেম্বর থেকে আগের ভাড়া বহাল রাখার সিদ্ধান্ত হলে সকল গণপরিবহণ আগের ভাড়ায় ফিরে যায়, তবে ফিরেনি হবিগঞ্জের সড়কে চলা- টমটম চালক মালিকরা। আগে শহরের ভেতর উঠানামা যেখানে ৫ টাকা ছিল সেখানে কথিত টমটম সমিতি সড়কের সীমানা ঠিক করে দিয়ে মনগড়া ভাড়া নেয়া অব্যাহত রাখে। পূর্বে শহরের পোদ্দারবাড়ি থেকে চৌধুরী বাজার পর্যন্ত ভাড়া ছিল ১০ টাকা। আর যেকোনো জায়গা থেকে উঠে নেমে গেলে ৫ টাকা। কিন্তু সরকারি ঘোষণার সুযোগ নেয় কথিত মালিক সমিতি। তারা নিজেদের মত করে তালিকা বানায় এবং চালকদের কাছ থেকে তালিকা বাবদ ৫০ টাকা করে নেয়। তাদের মনগড়া তালিকা মতে শায়েস্তানগর বাজার থেকে চৌধুরী বাজার পর্যন্ত সরাসরি ভাড়া করে ১০ টাকা এবং চৌধুরী বাজার থেকে থানার মোড় ও শায়েস্তানগর বাজার থেকে মোদক পর্যন্ত ৫ টাকা করা হয়। জনগণ এতে আপত্তি তুলেন। শুরু হয় আলোচনা সমালোচনা। স্থানীয় ও জাতীয় পত্রিকায় একাধিক সংবাদ প্রকাশ হয়। জনগণের তরফ থেকে ৫ টাকা ভাড়া বহালের দাবি উঠে। একাধিকবার মৌখিক অভিযোগ জানানো হয় পৌরসভার মেয়র বরাবর। কিন্তু কাজ হয়নি। এরই মাঝে গেল ২৮ ফেব্রুয়ারিতে অনুষ্ঠিত হয় পৌরসভা নির্বাচন। জনগণ আশায় থাকেন নতুন মেয়র আগের ৫ টাকা ভাড়া বহালের বিষয়ে ব্যবস্থা নেবেন। এদিকে গত কয়েকদিন ধরে দেশে করোনার প্রকোপ বাড়লে সরকারি তরফ থেকে আবারও গণপরিবহণে ৬০ শতাংশ ভাড়া বাড়ানো হয়। বলা হয় হাফ যাত্রী নিয়ে চলতে এবং স্বাস্থ্যবিধি মানতে। কিন্তু হবিগঞ্জ শহরের টমটম চালকরা মানছেন না। একটি টমটমে যাত্রী নেয়া হয় ৬/৮ জন করে। কিন্তু করোনার অযুহাতে দেখা যাচ্ছে উঠানামা করতেই যাত্রীদের ভাড়া দিতে হচ্ছে ১০ টাকা। ফলে ভাড়া নিয়ে যাত্রীদের সাথে বাকবিতন্ডা, বিশেষ করে নারী যাত্রীদের সঙ্গে জোরজবরদস্তি ও খারাপ আচরণের ঘটনা বেড়ে গেছে। সরেজমিন হবিগঞ্জ শহরে চলাচলরত টমটম যাত্রীদের কাছ থেকে দ্বিগুণ ভাড়া আদায় করতে দেখা যায়। খালি রাখা হয় না কোন সিট। যাত্রী বহনে মানা হয় না কোন ধরনের স্বাস্থ্যবিধি। পথে কোথাও প্রশাসনের খুব বেশি কড়াকড়ি থাকলে বাড়তি ঝামেলা এড়াতে মাঝে মাঝে যাত্রীদের কৌশলে পিছনে পাঠান কিংবা কাউকে অনুরোধ করে নামান। এ বিষয়ে কথা বললে নামিয়ে দেওয়ার মতোও দুঃসাহস দেখান চালকরা। টমটম যাত্রী রুমানা আক্তার বলেন, এখনো করোনার কথা বলে অতিরিক্ত ভাড়া নিচ্ছে। যাত্রীও বেশী নিচ্ছে। টমটম যাত্রী শেখ আশরাফ-উজ-জামান বলেন, অতিরিক্ত ভাড়া আদায়ের কারণে জনগণ চরম তির শিকার হচ্ছে। এ বিষয়ে দায়িত্বশীল কর্মকর্তাদের যথাযথভাবে দায়িত্ব পালন করতে হবে। হবিগঞ্জ পৌরসভার মেয়র আতাউর রহমান সেলিম বলেন, আগের ৫ টাকা ভাড়াই বহাল আছে। করোনা নিয়ন্ত্রণে সরকারি ঘোষণা অনুযায়ী ভাড়া দুই সপ্তাহের জন্য ৫ টাকা বেশি দিতে হবে। তবে যাত্রী নিতে হবে চারজন। কিন্তু কেউ যদি যাত্রী বেশি নিয়ে ভাড়া বেশি নেয় তাদের বিরুদ্ধে আজ শুক্রবার থেকে ১৫ এপ্রিল পর্যন্ত ভ্রাম্যমাণ আদালতের মাধ্যমে ব্যবস্থা নেয়া হবে।এ বিষয়ে জেলা প্রশাসক ইশরাত জাহান বলেন, আমরা পৌরসভার মেয়র ও মালিক সমিতির সাথে আলাপ আলোচনা করে ১ এপ্রিল থেকে ১৫ এপ্রিল পর্যন্ত স্বাস্থ্যবিধি মেনে প্রতি টমটমে ৩-৪ জন যাত্রী নিয়ে চলাচলের সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে। যদি কেউ তা অমান্য করে তাহলে ভ্রাম্যমান আদালতের মাধ্যমে ব্যবস্থা নেয়া হবে। আজ থেকে মাঠে ভ্রাম্যমান আদালত থাকবে। তাদেরকে সহযোগিতা করবে পৌরসভা।

Please Share This Post in Your Social Media

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

More News Of This Category
Portal Developed By ekormo.Com